ঢাকা, সোমবার, ১২ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

টেস্ট দলে থাকা ক্রিকেটারদের এনসিএল ছাড়ার নির্দেশ

দেশজুড়ে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের হার ক্রমেই বাড়ছে। এর প্রেক্ষিতে আসন্ন শ্রীলঙ্কা সফরের টেস্ট স্কোয়াডে থাকা খেলোয়াড়দের জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল) ছাড়তে বললো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ২-০ ব্যবধানে সিরিজ হারার পর, টেস্ট দলের সম্ভাব্য সদস্যের জন্য এনসিএলে খেলা বাধ্যতামূলক করে বিসিবি। এরইমধ্যে দুই রাউন্ড প্রায় শেষ পর্যায়ে, এমন সময় জানা গেল, দেশে থাকা টেস্ট ক্রিকেটারদের নিয়ে কোনো ঝুঁকি নেবে না বোর্ড। অনেকে আবার নিউজিল্যান্ড সফরে আছেন। অর্থাৎ তৃতীয় রাউন্ডে জাতীয় টেস্ট স্কোয়াডের কাউকেই এনসিএলে খেলতে দেখ যাবে না।

বুধবার (৩১ মার্চ) বিষয়গুলো জনপ্রিয় ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজকে জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। তিনি বলেন, ‘করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এনসিএলের তৃতীয় রাউন্ড থেকে শ্রীলঙ্কা সফরের সম্ভাব্য টেস্ট দলের সদস্যদের পাওয়া যাবে না। এই মুহূর্তে ওদের নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চাই না। এজন্য তাদের এনসিএলের শুরুর তিন রাউন্ডে খেলানোর আগের সিদ্ধান্তটি পাল্টানো হয়েছে। ’

এনসিএলের প্রথম রাউন্ডে টেস্ট দলের কয়েকজন খেলোয়াড় অংশ নিলেও সাদমান ইসলাম ও এবাদাত হোসেন করোনা পজিটিভ হওয়ায় ছিটকে গেছেন। এর মধ্যে সাদমান দুই রাউন্ডই মিস করেছেন। আর প্রথম রাউন্ডের তৃতীয় দিনের খেলা চলার সময় পজিটিভ হন এবাদত। আরেক পেসার খালেদ আহমেদও প্রথম রাউন্ডের পর করোনা পজিটিভ হওয়ার পর দ্বিতীয় রাউন্ডে অংশ নিতে পারেননি।

আগামী ৫ এপ্রিল থেকে এনসিএলের তৃতীয় রাউন্ডের খেলা শুরু হবে। এই রাউন্ডের সবগুলো ম্যাচ বিকেএসপি এবং কক্সবাজারে জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। ক্রিকবাজ জানতে পেরেছে, দেশজুড়ে স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা ভেবেই ভেন্যুর সংখ্যা দুইয়ে নামিয়ে এনেছে বিসিবি।