ঢাকা, রবিবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সহজ লক্ষ্যে নেমে বেকায়দায় ইংল্যান্ড

শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় ইনিংসে বাঁহাতি স্পিনার জ্যাক লিচ নিলেন পাঁচ উইকেট। গলেতে প্রথম টেস্টে সহজ জয়ের হাতছানি ইংল্যান্ডের সামনে। মাত্র ৭৪ রানের লক্ষ্যে নেমে বেকায়দায় পড়েছে সফরকারীরা। আজ রোববার চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করেছে ৩ উইকেটে ৩৮ রানে।

কাল সোমবার ম্যাচের শেষ দিন মাত্র ৩৬ রান চাই ইংল্যান্ডের। জয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারতে ১১ রানে জনি বেয়ারস্টো ও ৭ রানে ড্যান লরেন্স নামবেন ২২ গজে। কিন্তু চতুর্থ দিনের শেষ বিকেলের পারফরম্যান্স শ্রীলঙ্কার মনে অঘটন ঘটানোর বিশ্বাসের বীজ বুনে দিলো। ২০১৮ সালে এই গলেতে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংস শেষ হয়েছিল ৭৩ রানে, স্বাগতিকরা ২৮.৫ ওভারে ১০ উইকেট নিয়েছিল- এবার এই ম্যাচেও অবিশ্বাস্য কিছু করার ইঙ্গিত দিচ্ছে লঙ্কানরা।

লক্ষ্যে নেমে প্রথম ওভারে ওপেনার ডম সিবলিকে (২) হারায় ইংল্যান্ড। লাসিথ এম্বুলদেনিয়ার বল তার স্টাম্প ভেঙে দেয়। লঙ্কান স্পিনার আরেক ওপেনার জ্যাক ক্রলেকেও (৮) ফেরান নিজের তৃতীয় ওভারে। ১৪ রানে তিন নম্বর ব্যাটসম্যানের পতন ঘটে। দিনের শেষটা বড় উইকেট পায় স্বাগতিকরা। প্রথম ইনিংসে ২২৮ রান করা জো রুট অপ্রয়োজনীয় সিঙ্গেল রান নিতে গিয়ে রান আউট হন উইকেটকিপার নিরোশান ডিকবেলার সরাসরি থ্রোয়ে।

এর আগে শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয় ৩৫৯ রানে। ওপেনার লাহিরু থিরিমান্নে তার ৩৭ ম্যাচে দ্বিতীয় টেস্ট সেঞ্চুরি করেন। ১১১ রানে আউট হন তিনি। নতুন বলে তাকে পরাস্ত করেন স্যাম কারান। উইকেটকিপার জস বাটলারের গ্লাভসবন্দি হন থিরিমান্নে।

অফ স্পিনার ডম বেস শ্রীলঙ্কার মিডল অর্ডারে ফাটল ধরান। নাইটওয়াচম্যান এম্বুলদেনিয়া (০), দিনেশ চান্ডিমাল (২০) ও ডিকবেলাকে (২৯) ফিরিয়ে ম্যাচে আট উইকেটের মালিক হন তিনি।

অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ টেল এন্ডারদের নিয়ে সফরকারীদের হতাশ করেন। তার ৭১ রানের সহায়তায় ইংল্যান্ডকে কিছুটা লক্ষ্য দিতে সক্ষম হয় শ্রীলঙ্কা। তার লড়াই থামে লিচের ঘূর্ণিতে। রুটকে স্লিপে ক্যাচ দেন স্বাগতিকদের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। তাতে ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বার এক ইনিংসে পাঁচ উইকেটের কীর্তি গড়েন লিচ।

এই স্পিনারের সৌজন্যে টেস্ট ক্যারিয়ারে প্রথম স্টাম্পিং করেন বাটলার, ফেরান দিলরুয়ান পেরেরাকে (২৪)।