ঢাকা, রবিবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ফুটপাথে বসে প্রথম চুমু খেয়েছিলাম: উষসী

লিউডের ‘ব্যোমকেশ’ খ্যাত অভিনেত্রী উষসী চক্রবর্তী। কলেজে পড়াকালীন দেবাশীষ নামে এক তরুণের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান তিনি। উষসী তখন সেন্ট জেভিয়ার্স আর দেবাশীষ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েন। রোজ হেঁটে হেঁটে বাড়ি ফিরতেন তারা। যদিও দুজনের চোখেই ছিল বিপ্লবের লাল স্বপ্ন।

উষসীর প্রথম চুম্বনের অভিজ্ঞতা দেবাশীষের সঙ্গেই। রুবির ভেতরে আনন্দপুরের এক ফুটপাথে বসে প্রথম চুমু খেয়েছিলেন এই যুগল। সেই অভিজ্ঞতা জানিয়ে উষসী বলেন—‘আজও যখন ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের ফুটপাথে বসে প্রেম করতে দেখি, আমার সেই দিনটার কথা মনে পড়ে। তখন তো বাড়িতে প্রেম করার অবকাশ ছিল না। ওই মাও সে তুং-এর ছবির সামনেই আমাদের প্রেম হতো। আর একবার ফুটপাথে।’

উষসীর বাবা প্রয়াত রাজনীতিক শ্যামল চক্রবর্তীর কড়া নিয়ম ভেঙে প্রেম করতেন এই জুটি। রাত ৮টার আগে ঘরে ঢুকতে হতো তাকে। কিন্তু প্রেম তো আর বাধা মানে না! সেই নিয়মের বেড়াজাল ভেঙে ফেলার প্রবণতা বেড়ে যায় উষসীর। প্রতিদিন রাত সাড়ে ৮টা থেকে ৯টা বেজে যেত বাড়ি ফিরতে। এজন্য রোজ রোজ মিথ্যা অজুহাত তৈরি করতেন উষসী। সেই স্মৃতিচারণ করে উষসী বলেন, ‘‘প্রায় প্রতিদিনই বাবাকে বলতাম, বাবা, কী আর করব বলো! পথ অবরোধ ছিল। একদিন বাবা বলেছিলেন, ‘সব অবরোধ কি তোমার পথেই হয় মা?’’

২০১৩ সালে ‘মিসেস সেন’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন উষসী চক্রবর্তী। এরপর ‘রঞ্জনা আমি আর আসবো না’, ‘বেডরুম’, ‘আবার ব্যোমকেশ’ প্রভৃতি সিনেমায় অভিনয় করেন উষসী। তবে ‘ব্যোমকেশ বক্সি’ সিনেমায় ‘সত্যবতী’ চরিত্রে অভিনয় করে নজর কাড়েন এই অভিনেত্রী।