ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কারামুক্ত হলেন সেই বাবা

মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশু আদিবাকে (৭) ভর্তি করানো নিয়ে ঝামেলায় জড়িয়ে গ্রেপ্তার বাবা হাবিবুর রহমান কারামুক্ত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) ঢাকার সিএমএম আদালতের হাজতখানা থেকে তিনি মুক্ত হন। ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আশেক ইমামের আদালত পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকায় তার জামিন মঞ্জুর করেন।

এদিন তাকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মুগদা থানার উপ-পরিদর্শক মো. আব্দুল মান্নান। আসামিপক্ষে জামিন চেয়ে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. মোরাদুল আরিফিন (মারুফ)।

এসময় মামলার বাদীর জামিন নিয়ে কোনো আপত্তি আছে কি না- জানতে চাইলে তিনি আদালতকে আপত্তি নেই বলে জানান।

আদালতে মুগদা থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা সেলিম খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বুধবার (২৬ জুলাই) দুপুরের দিকে মুগদা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিজের ডেঙ্গু আক্রান্ত শিশু সন্তানকে ভর্তি করানো নিয়ে চিকিৎকর্মীদের সঙ্গে এ বাবার হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে এ ঘটনা মামলা পর্যন্ত গড়িয়েছে। যদিও শেষ পর্যন্ত ওই শিশুকে মুগদা হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল।

এ ঘটনায় মুগদা হাসপাতালের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবির।

জানা যায়, ওই হাসপাতালে নতুন করে শয্যা ফাঁকা না হওয়ায় শিশুর বাবাকে পার্শ্ববর্তী অন্য কোনো হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়। এরপর কথা কাটাকাটির জেরে শিশুটির বাবা চিকিৎসকের ওপর চড়াও হন। একপর্যায়ে শিশুটির বাবা চিকিৎসকের কলার ধরেন এবং কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। পরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই ব্যক্তিকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।