ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খেলোয়ারের চোট সমস্যার কারণে বিশ্বকাপের আগে আর্জেন্টিনা দলে পরিবর্তন

হোয়াকিন কোররেয়া আর্জেন্টিনার সবশেষ ম্যাচেই গোলের দেখা পেয়েছিলেন। যেভাবে খেলছিলেন, তাতে ধারণা করা হচ্ছিল কোচ লিওনেল স্ক্যালোনির হাতে দারুণ এক বিকল্পই হতে চলেছেন তিনি। তবে তার সে পথটা আগলে দাঁড়াল চোট। যার ফলে বিশ্বকাপটাই শেষ হয়ে গেছে তার।

দুর্ভাগ্য অবশ্য কেবল হোয়াকিনের একার নয়। নিকলাস গনজালেসও চোট নিয়ে চলে গেছেন মাঠের বাইরে। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি জানিয়েছে আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন।

আর্জেন্টিনার হয়ে ১৯ ম্যাচে ৪ গোল করা কোররেয়াকে বাদ দিতে হয়েছে যে চোটের কারণে, সেটার শুরু সংযুক্ত আরব আমিরাত ম্যাচের ঠিক পর থেকেই। সেই ম্যাচ খেলে এসেই বাম হাঁটুতে ব্যথা শুরু হয় তার।

এর আগেই অবশ্য পেশির চোট ছিটকে দেয় নিকলাস গঞ্জালেসকে। আর্জেন্টিনার বিবৃতিতে বলা হয় বিষয়টি। তার বদলে দলে ডাকা হয় রিজার্ভ হিসেবে থাকা আনহেল কোররেয়াকে।

এদিকে হোয়াকিনের বদলে দলে আনা হয় তিয়াগো আলমাদাকে। তিয়াগো আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে চড়িয়ে খেলেছেন মোটে একটি ম্যাচে।

চোট সমস্যা এখানেই শেষ হচ্ছে না আর্জেন্টিনার। কোপা আমেরিকার চ্যাম্পিয়নদের জন্য চিন্তা আছে আরও। পাওলো দিবালা চোট থেকে ঠিকঠাক সেরে ওঠেননি বলে জানাচ্ছে আর্জেন্টাইন সংবাদ মাধ্যম। সঙ্গে আলেহান্দ্রো পাপু গোমেজ ও দলের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ডিফেন্ডার ক্রিশ্চিয়ান রোমেরোর চোটও ঠিকঠাক সেরে ওঠেনি। যে কারণে সবশেষ ম্যাচেও খেলতে পারেননি তারা। সৌদি আরব ম্যাচের আগে সেরে ওঠেন কি না, তা নিয়েও আছে সন্দেহ।

আগামী ২২ নভেম্বর সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বজয়ের মিশন শুরু করবে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপের ‘সি’ গ্রুপে এরপর দলটি খেলবে মেক্সিকো ও পোল্যান্ডের বিপক্ষে।