ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হতদরিদ্র নারী কৃষক হালিমা খাতুনের সবজির গাছ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

কুমিল্লায় পরিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে হতদরিদ্র নারী কৃষক হালিমা খাতুন ও তার অসুস্থ স্বামী ইউনুস মিয়ার বর্গা নেয়া ২৮ শতাংশ জমির শীতকালীন সবজির গাছ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার (৫ অক্টোবর ) রাতের আঁধারে উপজেলার পরিহলপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী কৃষাণী হালিমা খাতুন বলেন, নিজের জমি না থাকায় ২৮ শতক জমি বর্গা নিয়ে সেখানে বিভিন্ন ফসল উৎপাদন করে সংসার চালান তিনি। সেই অর্থ দিয়ে চলে অসুস্থ স্বামীর চিকিৎসার খরচও।

গত শনিবার রাতের আঁধারে দুর্বৃত্তরা ফসলের ক্ষেতের লাউ, শিম, বেগুনসহ বিভিন্ন সবজি গাছ কেটে ফেলে। রোববার ভোরে গিয়ে দেখি সকল গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। এতে প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বুড়িচং উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা বানিন রয় বলেন, রোববার সকালে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। একজন হতদরিদ্র কৃষকের অনেক বড় ক্ষতি হয়েছে। আমরা ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে পাঠিয়েছি।

বুড়িচং থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মারুফ রহমান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার হালিমা খাতুন বলেন, আমি খবর পেয়ে কৃষি কর্মকর্তাকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছি। তিনি সেখানে গিয়ে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করে আমাকে একটা প্রতিবেদন দিয়েছেন। আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ওসির সঙ্গে কথা হয়েছে।