ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শেয়ারহোল্ডারদের মুনাফার অর্ধেক টাকাও দেবে না জেএমআই হসপিটাল

জুলাই ২০২১ থেকে জুন ৩০, ২০২২ সমাপ্ত বছরে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি জেএমআই হসপিটাল রিকুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং লিমিটেডের মুনাফা হয়েছে ৩২ কোটি ৫০ লাখ ১৯ হাজার ৯৭৩ টাকা।

সেখান থেকে কোম্পানির ১২ কোটি ৫২ লাখ ৯৪ হাজার ১২০ শেয়ারধারীদের মোট ১৫ কোটি ৬৬ লাখ ১৭ হাজার ৬৫০ টাকা দেবে। যা মুনাফার অর্ধেকেরও কম। বাকি টাকা দিয়ে কী করবে এমন কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি কর্তৃপক্ষ। কোম্পানি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

কোম্পানির তথ্য মতে, চলতি বছর পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির ৩০ জুন সমাপ্ত বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ৩ টাকা ২৫ পয়সা অনুমোদন করেছে পর্ষদ। এই মুনাফা থেকে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১২ দশমিক ৫০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

 

সে হিসেবে কোম্পানির কর পরবর্তী মুনাফা দাঁড়িয়েছে ৩২ কোটি ৫০ লাখ টাকার বেশি। এর আগের বছর অর্থাৎ ২০২০ সালের জুলাই থেকে ২০২১ সালের জুন সময়ে কোম্পানির কর পরবর্তী মুনাফা হয়েছিল ২২ কোটি ৫০ লাখ ৪ হাজার ৩৭১ টাকা। অর্থাৎ আগের বছরের চেয়ে ১০ কোটি ১৫ হাজার ৬০২ টাকা বেশি।

এ বিষয়ে কোম্পানি সচিব শফিকুর রহমান ঢাকা পোস্টকে বলেন, আজ কোম্পানির পর্ষদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১ টাকা ২৫ পয়সা করে লভ্যাংশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তাতে বিনিয়োগকারীদের ১৫ কোটি ৬৬ লাখ ১৭ হাজার ৬৫০ টাকা দেওয়া প্রস্তাব করা হয়েছে।

কোম্পানির বাকি ১৬ কোটি ৮৪ লাখ ২ হাজার ৩২৩ টাকা কোথায় বিনিয়োগ করা হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আজকের সভায় এ রকম কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। পর্ষদ সিদ্ধান্ত নতুন করে সিদ্ধান্ত নিলে জানানো হবে।

সূত্র জানায়, পর্ষদ ঘোষিত লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য কোম্পানিটির বার্ষিক সাধারণ সভার (এজিএম) দিন নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১২ জানুয়ারি। ওই দিন ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে সকাল ১১টায় কোম্পানির এজিএম অনুষ্ঠিত হবে। লভ্যাংশ শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে বিতরণে কোম্পানিটির রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ নভেম্বর।

ওষুধ ও রসায়ন খাতের কোম্পানিটির বর্তমান ব্যাংক ঋণ রয়েছে ১৫২ কোটি টাকারে বেশি। এর মধ্যে দীর্ঘ মেয়াদি ঋণ রয়েছে ৪৬ কোটি ৬৩ লাথ ৭০ হাজার টাকার। আর স্বল্প মেয়াদি ঋণ রয়েছে ১০৬কোটি ৯ লাখ ১০ হাজার টাকা।

আজ কোম্পানিটির শেয়ার সর্বশেষ লেনদেন হয়েছে ১০০ টাকায়। কোম্পানির রিজার্ভ রয়েছে ১০৯ কোটি ৪৫ লাখ টাকা।

কোম্পানির সাড়ে ১২ কোটি শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে উদ্যোক্তা-পরিচালকদের হাতে রয়েছে ৩২ দশমিক ৩২ শতাংশ শেয়ার, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে ৪২ দশমিক ২২ শতাংশ শেয়ার এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে ২৫ দশমিক ৪৬ শতাংশ শেয়ার।