ঢাকা, সোমবার, ১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কোয়াড কার্ভড ওয়াটারফল ডিসপ্লের ফোন!

বাঁকানো ডিসপ্লের সঙ্গে মোবাইলপ্রেমীদের পরিচয় নতুন নয়। স্যামসাং থেকে শুরু করে অনেকেই এনেছে কার্ভ বা বাঁকানো ডিসপ্লের মোবাইল সেট। কিন্তু শাওমি চমকে দিয়েছে মোবাইল ফোনের চারদিকেই বাঁকানো ডিসপ্লে উদ্ভাবন করে! এর আগেও এধরনের বাঁকানো ডিসপ্লের ফোন শাওমি এনেছে কিন্তু ওয়াটারফল ডিসপ্লের ফোন সবাইকে চমকে দিয়েছে।

একটি ফোনের চারদিকেই ডিসপ্লে, এটা ভাবা যত সহজ একে বাস্তবে রুপ দেয়া ততটাই কঠিন। শাওমিও তাই বলছে, কোয়াডকার্ভ ডিসপ্লের ফোন আনাটা সহজ ছিলনা। এই ফোনের ডিসপ্লে বানাতে অনেক কঠিন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। এর ডিসপ্লে তারা নিজেরাই উন্নয়ন করেছেন। ৮০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা এবং উচ্চচাপে একে চারটি পোলিশিং যন্ত্রাংশসহ ১০টি পোলিশিং প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যেতে হয়েছে। এ ধরনের একটি ডিসপ্লে পেতে ১০০০ বার চেষ্টা করতে হয়েছে। এই ডিসপ্লের জন্য বিসর্জন দিতে হয়েছে পোর্ট, স্পিকার, বাটন থেকে ডিসপ্লের ওপরের অংশের ক্যামেরা পর্যন্ত! এসব করতে শাওমিকে ৪৬টি প্রযুক্তিগত পেটেন্ট করতে হয়েছে, যার মধ্যে আছে আন্ডার ডিসপ্লে ক্যামেরা, ওয়্যারলেস চার্জিং, প্রেসার সেন্সিটিভ টাচ সেন্সর ইত্যাদি।২০১৯ সালে শাওমি এই  টাইপের একটি ফোন এনেছিল, যার নাম ছিল মি মিক্স আলফা। সেটার ডিসপ্লে সাইডেও ছিল কিন্তু এটার মতো উপরে এবং নিচে ছিল না। ইউটিউবে এর একটি ভিডিও দিয়েছে শাওমি, সেখানে এর ওয়াটারফল ডিসপ্লের মাধুর্য ফুটে উঠেছে। এতে পানি প্রবাহের ভিডিওগুলো দারুন এক দৃশ্যের অবতারণা করে। তবে কোয়াড কার্ভড ওয়াটারফল ডিসপ্লের ফোন কবে নাগাদ বাজারে আসবে সে ব্যাপারে কিছুই জানায়নি শাওমি।